চা বিক্রেতার মেয়ে আদালতের বিচারক

g_183037যে দেশের প্রধানমন্ত্রী একসময় চা বিক্রি করতেন এবার সে দেশের এক চা বিক্রেতার মেয়ে দেশের আদালতের বিচারক হলেন। পঞ্জাবের জলন্ধরের এক আদালত চত্বরে চা বিক্রি করে সংসার চালানো সুরেন্দ্র কুমার নামের এক ব্যক্তির মেয়ে ওই কোর্টেরই বিচারক হলেন।
সুরেন্দ্রর মেয়ে শ্রুতি পড়াশোনায় শুরু থেকেই ভাল ছিল। বছর ২৩-এর শ্রুতি প্রথম বারেই পাশ করেছেন পঞ্জাব সিভিল সার্ভিস (জুডিসিয়াল) পরীক্ষা। এরপর একবছর ট্রেনিং-এর পর এখন পঞ্জাবের জলন্ধরে নাকোদার শহরের সাব-ডিভিশনার ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টের বিচারকের পদে নিযুক্ত হলেন। এসসি ক্যাটাগরিতে প্রথম হয়েছেন শ্রুতি।
মেয়ের বিচারক হওয়ার খবরে বাবার চোখে খুশির জল। চা বিক্রেতা সুরেন্দ্র বললেন, ‘এই দিনটার অপেক্ষাতেই ছিলাম। বিশ্বাস ও এরকম একটা কিছু করবে।’ কথাটা বলতে বলতে কেঁদে ফেলেন। আর মেয়ে শ্রুতি কী বলছেন।
শ্রুতি বললেন, আমার কাজটা সহজ ছিল না ঠিকই। কিন্তু বাবাকে চা বিক্রি করতে দেখে জেদটা চেপে গিয়েছিল। সেই জেদটার জন্যই হয়তো স্বপ্নের চাকরিটা করতে পারছি।
তিনি বলেন, ‘আমি সবসময়ই চাইতাম কোনও আইনি পেশার সঙ্গে যুক্ত হতে। বিশেষত চাইতাম বিচারক হতে। তাই এই পরীক্ষায় বসা। এবং প্রথমবারেই সাফল্য।’এত বড় সাফল্যের পর শ্রুতিকে নিয়ে রাজ্যজুড়ে শুরু হয়েছে উচ্ছ্বাস, সংবর্ধনা অনুষ্ঠান।

Share and Enjoy

  • Facebook
  • Twitter
  • Delicious
  • LinkedIn
  • StumbleUpon
  • Add to favorites
  • Email
  • RSS





Related News

  • পাকিস্তানের পাল্টা হামলা
  • সব ঘটনার জন্য প্রস্তুত হন : জনগণের উদ্দেশে ইমরান
  • সমালোচনার তোড়ে ইহুদিবিরোধী বক্তব্যের জন্য ক্ষমা চাইলেন ইলহান
  • জাতিসংঘে ভাষণে প্রধানমন্ত্রী মিয়ানমার মুখে বলছে, বাস্তবে ভূমিকা নিচ্ছে না
  • ‘গুপ্তধন’ উদ্ধার, লকার গুলো ভেঙে পাওয়া গেছে ৫০০ কোটি রুপি
  • থাইল্যান্ডের গুহা থেকে ৮ কিশোরকে উদ্ধার করেছে ডুবুরিরা
  • কর দিতে হবে ফেসবুক, ইউটিউব, গুগলকে
  • ‘তারা পুড়ছিল, আর্তনাদ করছিল, কেউ কেউ ঝাঁপিয়ে পড়লো’
  • Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
    Email
    Print