পরশুরামে মুহুরী,কহুয়া, সিলোনিয়া নদীর ৫টি স্থানে বেড়ী বাঁধ ভাঙ্গনের কারনে ১৫ টি গ্রাম প্লাবিত


পরশুরাম প্রতিনিধি-
অভিরাম বর্ষন ও পাহাড়ী ঢলের পানিতে ফেনীর পরশুরামে মুহুরী,কহুয়া, সিলোনিয়া নদীর ৫টি স্থানে বেড়ী বাঁধ ভাঙ্গনের কারনে ১৫ টি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। এতে আমান ধান , শীতকালীন সবজি, মাছ সহ রাস্তাঘাটের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।
বেড়ীবার্ধের ভাঙ্গনের কারনে পরশুরামের আঞ্চলিক সড়ক গুলির সাথে যানচলাচল বন্ধ রয়েছে। এছাড়াও ইউনিয়ন পর্যায়ে গত দুইদিন ধরে বিদ্যুত সংযোগ বিচ্ছির্ন রয়েছে।
এছাড়াও অভিরাম বর্ষনের কারনে উপজেলার প্রায় আরো ১০ টি গ্রাম পানি বন্ধি রয়েছে।
উপজেলা প্রশাসন থেকে জানা গেছে অভিরাম বর্ষন ও পাহাড়ী ঢলের পানির কারনে কহুয়া নদীর পানি বিপন সীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হওয়া শনিবার গভীর রাতে পরশুরাম উত্তর বাজারের ফিরোজ মজুমদারের বড়ীর সামনে বেড়ী বাধ ভেঙ্গে যায়, এই সময় দুলাল ডাইভারের বসত ঘর ভেসে যায়। ওই স্থানে ভাঙ্গনের কারনে পৌর এলাকার খোন্দকিয়া, দুবলাচাদ, বিলোনিয়ার ব্যাপক ঘর বাড়ী প্লাবিত হয়। এবং বিপুল পরিমানের পুকুরের মাছ নদীর পানিতে ভেসে যায়। এই স্থানে ভাঙ্গনের কারনে পৌর মেয়র নিজাম উদ্দিন সাজেলের ১২ টি পুকুরের প্রায় কোটি টাকার মাছ ভেসে গেছে বলে মেয়র সাজেল চৌধুরী সাজেল।
এছাড়াও উপজেলার মির্জানগর ইউনিয়নের পাটনি কোনা নামক স্থানে ভাঙ্গনের কারনে মনিপুর ও আশ্রাফ গ্রাম প্লাবিত হয়।
অপরদিকে শনিবার রাতে চিথলিয়া ইউনিয়নের মুহুরী নদীর ধনিকুন্ডা এবং নোয়াপুর নামক স্থানে ভাঙ্গনের কারনে ধনিকুন্ডা, ধনিক্ডুা বাজার, নোয়াপুর, অলকা, অনন্তপুর, রামপুর, দুর্গাপুর গ্রাম প্লাবিত হয়েছে।
এছাড়া ও বক্সমাহমুদ ইউনিয়নের কহুয়া নদীর বাগমাড়া ও টেটেশ্বর নামক স্থানে ভাঙ্গনের কারনে উত্তর গুথুমা, বাঘমারা , টেটেশ্বর, গ্রাম প্লাবিত হয়েছে।
উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সিরাজুল ইসলাম জানান অভিরাম বর্ষণ ও পাহাড়ী ঢলের বন্যায় উপজেলায় ১ হাজার ৪০ হেক্টর জমির আমন ধান ক্ষতিগস্ত্য হয়েছে। এছাড়াও ৩০ হেক্টর শীতকালীন সবজি নষ্ট হয়েছে বলে প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে।
অপরদিকে উপজেলা মৎস কর্মকর্তা বিজয় কুমার পাল জানান দুইদিনের বন্যায় উপজেলার ৩ শ ৮২ টি পুকুর ডুবে গেছে। এছাড়াও প্রায় ৯ মেট্রিকটন পোনা মাছ ভেসে গেছে এবং ১৭২ মেট্রিক টন মাছ বন্যার পানিতে ভেসে গেছে । এতে উপজেলার ১ শ ৩৮ জন মাছ চাষী ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।
পরশুরাম পৌরসভার মেয়র নিজাম উদ্দিন চৌধুরী সাজেল জানান পৌর এলাকায় তার চাষের প্রায় ১২ টি পুকুরে কোটি টাকার মাছ সম্পুর্ন ভেসে গেছে।
রোববার সকালে পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তা , উপজেলা প্রশাসন নদীর ভাঙ্গন কবলিত স্থান পরিদর্শণ করেছেন।

Share and Enjoy

  • Facebook
  • Twitter
  • Delicious
  • LinkedIn
  • StumbleUpon
  • Add to favorites
  • Email
  • RSS





Related News

  • পরশুরাম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে কামাল,বাদল, পাপিয়া বিনা প্রতিদন্ধিতায় নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন
  • পরশুরাম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে কামাল,বাদল, পাপিয়া বিনা প্রতিদন্ধিতায় নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন
  • বিলোনিয়া স্থল বন্দরের ইমিগ্রেশন সেন্টার নির্মাণ কাজ বিএসএফের বাধায় এক বছর ধরে বন্ধ
  • পরশুরামে ইয়াছিন শরীফ পুনরায় বিআরডিবির চেয়ারম্যান নির্বাচিত
  • ফেনীর পরশুরামে প্রথম বাণিজ্যিক ভাবে রাবার উৎপাদন
  • পরশুরামের মুহুরী ও কহুয়া নদীর মোহনায় সেচ্চাশ্রমে অস্থায়ী বাঁধ নির্মান
  • পরশুরামের মুহুরী ও কুহুয়া নদীর মোহনায় অস্থায়ী বাঁধ নির্মানের দাবি
  • পরশুরামে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে মানসম্মত শিক্ষা ব্যাবস্থা গড়ে তুলতে জেলা প্রশাসকের নির্দেশনা
  • Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
    Email
    Print