পরশুরামে সমিতির লাখ লাখ টাকা আত্বসাতের পাঁয়তারা করছে জাসদ ছাত্রলীগের দুই নেতা

আবু ইউসুফ মিন্টু:-
পরশুরামের পৌর এলাকার প্রতিতী বহুমূখী সমবায় সমিতির নামে ২০০৮ সালে একটি প্রতিষ্ঠান খুলে গ্রাহকদের কাছ থেকে ডিপিএস, এফডিআর ও সঞ্চয় এর নামে কয়েক লাখ টাকা আমানত নিয়ে ফেরত না দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।
বর্তমানে ওই প্রতিষ্ঠানের প্রাতিষ্ঠানিক কোন অস্তিত্ব না থাকায় ৪৮৬ জন গ্রাহক টাকা ফেরত পেতে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি উপজেলা প্রশাসন সহ বিভিন্ন মহলের দারে দারে ঘুরে বেড়াচ্ছে।

অপরদিকে গত ১০ অক্টোবর পরশুরাম উপজেলা সমবায় অফিসার মিলন কান্তি দাস জেলা সমবায় কর্মকর্তার নির্দেশনা মোতাবেক আগামী ৭ দিনের মধ্যে যাবতীয় খাতাপত্র ও হিসাবাদী জমা দেওয়ার জন্য মিজানুর রহমান ও রোশনা আক্তারকে চিঠি দিয়েছে। সমবায় কর্মকর্তা জানান এর আগেও তাদেরকে পর পর তিনবার গ্রাহকদের টাকা ফেরত দেওয়ার জন্য চিঠি দেওয়া হয়েছে।

অভিযুক্ত মিজানুর রহমান ফেনী জেলা জাসদ ছাত্রলীগের সভাপতি অপরজন তার স্ত্রী রুশনা আক্তার রুমি পরশুরাম উপজেলা জাসদ ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক। ওই সমিতির সভাপতি সম্পাদক স্বামী স্ত্রী দুইজনেই অদল বদল করে নিজেদের প্রছন্দমত করে কমিটি গঠন করে কার্যক্রম পরিচালনা করতেন।

সমিতির সভাপতি মিজানুর রহমান জানান তিনি জমি বিক্রি করতে না পারায় গ্রাহকদের ডিপিএস সহ আমানতের টাকা পরিশোধ করতে পারছেন না। তার দাবি মতে গ্রাহকরা তার কাছে আমানতের ৬ লাখ টাকা পাওনা রয়েছে।
অপরদিকে উপজেলা সমবায় কার্যালয়ে সুত্রে জানা গেছে প্রতিতী বহুমূখী সমবায় সমিতি ২০০৮ সালে প্রতিষ্ঠিত হলেও ২০১৩ সালের পর থেকে সমিতির কার্যক্রম সম্পুর্ন বন্ধ রয়েছে।
সমিতির সভাপতি রুশনা আক্তার স্বাক্ষরিত ২০১৩ সালের ৩০ জুন উপজেলা সমবায় অফিসে দেওয়া জবাবে ১৪ লাখ ৬৮ হাজার ৪শ ১৯ টাকার হিসাব জমা দিয়েছেন।

রাজু, আনোয়ার, জাহাঙ্গির, সবুজ, কহিনুর, বাবু, বেলাল, এমাম,সোহরাব, রাব্বি সহ অসংখ্য গ্রাহক সুত্রে জানা গেছে উপজেলার পৌর এলাকার বিভিন্ন গ্রামের প্রায় ৫ শতাধিক গ্রাহকদের টাকা আত্বসাতের অভিযোগ উঠেছে, গ্রাহকদের অভিযোগে আত্বসাত কৃত টাকার পরিমান প্রায় ২০ লাখ টাকা।

অপরদিকে ফেনী জেলা সমবায় অফিসের কর্মকর্তা হাফিজ উল্যাহ স্বাক্ষরিত এক পত্রে প্রতিতী বহুমূখী সমবায় সমিতি কে বর্তমানে লিকুইডেশন দেখানো হয়েছে।
প্রতিতী বহুমূখী সমবায় সমিতির বর্তমান সভাপতি মিজানুর রহমান স্বীকার করেন বর্তমানে সমিতির বন্ধ রয়েছে। তবে তিনি জমি বিক্রি করতে পারলে গ্রাহকদের আমানতের সব টাকা ফেরত দিবেন।

পরশুরাম উপজেলা জাসদের সাধারন সম্পাদক আবদুল মোমেন মজুমদার বাবুল জানান প্রতিতী বহুমূখী সমবায় সমিতির নামে গ্রাহকদের কাছ থেকে মিজান ও রুমির বিরুদ্বে গ্রাহকদের কাছ থেকে টাকা নেওয়ার বিষয়টি তিনি শুনেছেন, তাদের ব্যাক্তিগত কোন অপরাধের দায়ভার জাসদ নিবেনা। এই ধরনের অর্থআত্বসাতের বিষয় কোন গ্রাহকের কাছ থেকে সুনিদিষ্ট অভিযোগ পাওয়া গেলে দুইজনকে অবশ্যই দল থেকে বহিস্কার করা হবে।

উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা মিলন কান্তি জানান তিনি গত বছরের ১৯ জানুয়ারী পরশুরামে যোগদান করেছেন। তিনি আরো জানান ওই সমিতির বর্তমানে কোন কার্যক্রম নেই , তাদের বিরুদ্বে পর পর তিনবার সমিতির আয়ব্যায়ের হিসাব জমা দেওয়ার জন্য চিঠি দেওয়া হয়েছে। কিন্তি সমিতির সভাপতি মিজানুর রহমান ও তার স্ত্রী চিঠির কোন জবাব না দিয়ে বিষয়টি ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করছেন। তিনি জানান হিসাবে গরমিল এবং গ্রাহকের আমানতের টাকা ফেরত না দেওয়ার সমিতির সভাপতি ও সম্পাদক সহ কমিটির লোকজনের বিরুদ্বে আইনগত ব্যাবস্থ্য নিতে জেলা প্রশাসক, উপজেলা চেয়ারম্যান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সহ সংলিষ্ট সকল দপ্তরে চিঠি দেওয়ার প্রক্রিয়া চলছে।
অপরদিকে উপজেলা সমবায় কর্মকর্তাদের পর পর দুই বার অডিট রিপোটে এই সমিতির কোন অস্তিত্ব না থাকায় এবং হিসাবে গরমিল, সমবায় সমিতির বিধি লংঘন সহ ব্যাপক অনিয়ম ও অর্থআত্বসাতের বিষয় প্রতিবেদন দিয়েছেন। এবং কি প্রতিতী সমবায় সমিতিকে লিকুইডেশন বা অবসায়ন ঘোষনা করেছেন।

Share and Enjoy

  • Facebook
  • Twitter
  • Delicious
  • LinkedIn
  • StumbleUpon
  • Add to favorites
  • Email
  • RSS





Related News

  • পরশুরামে বাউরখুমা আশ্রয়ণ প্রকল্পে ১৮ বছরেও কোন মেরামত কাজ হয়নি
  • বক্সমাহমুদ ইউনিয়ন ছাত্রলীগের পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত
  • পরশুরামে বাল্য বিবাহ ঠেকালো প্রশাসন
  • পরশুরামে দাফনের দুই মাস পর কবর থেকে গৃহবধুর লাশ উত্তোলন
  • পরশুরামের মির্জানগর ইউপি চেয়ারম্যানের শশুরের পুকুরে বিষ প্রয়োগে মাছ নিধনের অভিযোগ
  • পরশুরাম থানার পূর্ব পাশে ডিবি পুলিশ পরিচয়ে ডাকাতি
  • পরশুরামে মাদক সহ তিন জন আটক
  • পরশুরাম উপজেলা ভুমি অফিসের অফিস সহায়ক শাফায়েতের বিরুদ্বে এবার ঘুষ দাবির অভিযোগ
  • Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
    Email
    Print