ফেনীর শান্তি কোম্পানী রোডে সম্পত্তি বিরোধে বর্বর নির্যাতন

ফেনীর শান্তি কোম্পানী রোডে সম্পত্তি বিরোধে বর্বর নির্যাতন

Feni_sador_unduteফেনী শহরের শান্তি কোম্পানী সড়কের জয়নাল ম্যানশনে শারারিক ও মানসিক ভাবে নির্যাতিত ইয়াকুব শাহীন (৩৮) নামের এক ব্যক্তিকে মূমুর্ষ অবস্থায় উদ্বার করেছে পুলিশ। সম্পত্তি জবর দখল ও অর্থ আত্মসাতের উদ্দেশ্যে শাহীনের বড় ভাই মো:ইউসূফ দুলাল তাকে নিজ ঘরের ্একটি কক্ষে তিন দিন ধরে আটক করে এই নির্যাতন চালায় বলে অভিযোগ উঠে। বর্তমানে শাহীন চট্রগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মূত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে।
সূত্রে জানা যায়, গত রবিবার সন্ধ্যায় খবর পেয়ে ফেনী মডেল থানার এসআই কিবরিয়া নির্যাতিত শাহীনকে ঘটনারস্থল থেকে উদ্বার করে ফেনী সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। তার মাথায় ও সমস্ত শরীরে কিলঘুষি ও লাঠির আঘাতে চিকিৎসাধিন অবস্থায় শারারিক অবনতি ঘটে। ফলে তাকে মঙলবার বিকালে ফেনী সদর হাসপাতাল হতে চট্রগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে ( ২৮ নং ওয়ার্ডের ১৮নং সীটে) বিশেজ্ঞ ডাক্তারে চিকিৎসাধিন রয়েছে। নির্যাহিত ব্যক্তি এখনও শংকা মুক্ত নয় বলে জানিয়েছেন তার স্ত্রী সহ পরিবারের সদস্যরা।
এদিকে নির্যাতিতের পক্ষে তার স্ত্রী রবিবার রাতে ফেনী মডেল থানায় একটি অভিযোগ পত্র দায়ের করেন। থানায় দায়ের কৃত অভিযোগে উল্লেখ করা হয়, শান্তি কোম্পানী সড়কের জয়নাল আবেদীন ম্যানশনের মালিক জয়নাল আবেদীন নির্যাতিত শাহীনের পিতা। তার বড় ভাই মো: ইউসুফ দুলালের বিরুদ্ধে পারিবারিক ১ কোটি টাকা আত্মসাথের অভিযোগ করায় পিতা জয়নালকে মারধর করে দুলাল। এমন অভিযোগ শুনে শাহীন কাতার হতে গত ২২ জুন ১৫ইং তারিখে বাড়িতে আসে। এর মধ্যে ৩ দিনের মাথায় আহত অবস্থায় তার পিতা জয়নাল আবেদীন মারা যায় । এই ঘটনায় সে ক্ষোভ প্রকাশ করলে বড় ভাই দুলাল তার উপর নানা ভাবে নির্যাতন শুরু করে। বিষয়টি নিয়ে শাহীন আত্্রীয় স্বজনের নিকট বিচার প্রার্থী হলে দুলাল আরো ক্ষিপ্ত হয়ে বহিরাগতদের নিয়ে তার উপর নির্যাতন ও হয়রানী করতে থাকে।
এক পর্যায় গত ১০ সেপ্টম্বর হতে ১৩ সেপ্টম্বর পর্যন্ত তাকে ঘরের একটি কক্ষে আটক করে শাররিক ভাবে নির্যাতন চালাতে থাকে দুলাল। এই সময় তার মোবাইল ফোন নিয়ে গিয়ে তাকে বিচ্ছিন্ন করে রাখে। ঐদিন সন্ধ্যায় দুলাল সাথে ছোট ভাই ফয়জুল্যাহ ও সাইদুল্যাহসহ তার থেকে জোর পূর্বক কিছু অলিখিত কাগজে স্বাক্ষর ও টিপসই নিয়ে নেয় এবং ব্যাপক মারধর করে। পর ফেনী মডেল থানা পুলিশ খবর পেয়ে তাকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য ফেনী সদর হাসপাতালে প্রেরণ করে।
অন্যদিকে দুলালের এই সব অনিয়মের প্রতিবাদ করায় গত আগষ্ট মাসে প্রথম সপ্তাহে দুলাল ও ছোট ভাই ফয়জুল্যাহ, সাইদুল্যাহসহ ট্যাংকরোডস্থ ভূমি অফিসের সামনে লোকজন নিয়ে তার বোনের জামাই ফারুকের উপর হামলা করে। এতে তার মাথা পেটে যায় এবং মাথা ব্যাপক জথম হওয়ায় তাকে ফেনী সদর হাসপাতালে বেশ কয়েক দিন চিকিৎসা দেওয়া হয়, ফারুক এখনও অসুস্থ্য রয়েছে।
এদিকে সম্পত্তি আত্মসাতের অভিযোগের বড় ভাই কর্তৃক ছোট ভাইয়ের উপর বর্বর নির্যাতনের খবরে এলাকার তীব্র ক্ষোব ও উত্তেজনা বিরাজ করছে। স্থানীয়রা জানান তারা অভিলম্বে উক্ত ঘটনার সুষ্ঠু বিচার দাবী করে অপরাধীকে আইনের আওতায় এনে বিচারের মুখোমুখি করার।

Share and Enjoy

  • Facebook
  • Twitter
  • Delicious
  • LinkedIn
  • StumbleUpon
  • Add to favorites
  • Email
  • RSS





Related News

  • ফেনীতে যায় যায় দিনের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত
  • স্টার লাইনের অতিরিক্ত ভাড়া আদায়. ফ্লাইওভারের টোল ফাকি সহ যাত্রীদের হয়রানির অভিযোগ!
  • ফেনী সদরের ৮ ইউপিতে বিএনপির প্রার্থী ঘোষনা
  • বারাহিপুরে ৫ম শ্রেনীর ছাত্রী ধর্ষন, বখাটেকে পুলিশে সোপর্দ
  • ফেনীতে চারতলা ভবন হেলে পড়েছে ছয়তলা ভবনের ওপর
  • ফেনী সদরের ৮ ইউপিতে আ’লীগের প্রার্থী ঘোষনা
  • ফেণীতে চুরির অভিযোগে টোকাই কিশোরকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন
  • ফেনী সদরে আ’লীগের আরো অর্ধশত ফরম বিতরণ
  • Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
    Email
    Print