পাকিস্তানের পাল্টা হামলা

২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

পাকিস্তানের ভেতরে জঙ্গি ঘাঁটিতে ভারতীয় বিমানবাহিনীর আকস্মিক বোমা হামলার পর ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মীরের কানাচক সীমান্তে গোলাবর্ষণ করেছে পাক সৈন্যরা। আজ মঙ্গলবার ভোরে পাকিস্তান সীমান্তরক্ষী বাহিনী পাক রেঞ্জার্স ভারতীয় সীমান্তরক্ষীদের লক্ষ্য করে এ হামলা চালায়।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়া টুডে’র এক প্রতিবেদনে বলা হয়, সোমবার দিবাগত রাত সাড়ে ৩টায় পাকিস্তান অধিকৃত কাশ্মীরে ভারতীয় বিমানবাহিনীর ২১ মিনিটের অভিযানের পর সীমান্তে অস্ত্রবিরতি লঙ্ঘন করে পাকিস্তান এ হামলা করে। পাক রেঞ্জার্সের এই হামলায় হতাহতের কোনো ঘটনা ঘটেনি। তবে ভারতও এর সমুচিত জবাব দিয়েছে বলে জানিয়েছে দেশটির সেনাবাহিনী।

এর আগে পাকিস্তানের নিয়ন্ত্রণরেখা (লাইন অব কন্ট্রোল) পেরিয়ে দেশটির জয়েশ-ই-মোহাম্মদ, হিজবুল্লাহ মুজাহেদীন ও লস্কর-ই-তায়েবার স্থাপনায় ভারতের বিমানবাহিনী হামলায় ২০০ থেকে ৩০০ জন নিহত হয়েছে বলে দাবি করছে নয়াদিল্লি। মঙ্গলবার ভোরে এ হামলা চালানো হয়।

বিমানবাহিনীর সূত্রের বরাত দিয়ে হিন্দুস্তান টাইমসের খবরে বলা হয়, ভারতীয় বিমানবাহিনীর ১২টি মিরেজ ২০০০ জেট বিমান এ হামলায় অংশ নেয়। তাদের নিক্ষেপ করা ১ হাজার কেজি বোমাবর্ষণে ২০০ থেকে ৩০০ জন মারা গেছে।

তবে হামলায় হতাহতের খবর উড়িয়ে দিয়েছে পাকিস্তান। দেশটির একটি সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, ভারতের বিমান হামলায় কোনো হতাহত কিংবা ক্ষয়ক্ষতি হয়নি।

লেজার পরিচালিত এ বোমা ইসরাইলি প্রযুক্তিতে বানানো এবং এটি প্রথম কারগিলে ব্যবহার করা হয়েছিল। এ বিমান হামলার ঘটনা ঘটে দিবাগত রাত সাড়ে তিনটার দিকে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিব বিজয় কেশব গোখলে সরকারি এক বিবৃতিতে বলেন, ‘এই  বিমান হামলা একটি অসামরিক পদক্ষেপ।’

তিনি জানান, নিয়ন্ত্রণরেখার ওপারে পাকিস্তাননিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরে জয়েশ জঙ্গি ঘাঁটি ধ্বংস করেছে বিমানবাহিনী। নিহত হয়েছেন জয়েশ-ই-মোহাম্মদের সিনিয়র কমান্ডাররা।

টাইমস অব ইন্ডিয়া অনলাইনের খবরে জানানো হয়, ভোরে সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের পর বৈঠকে বসেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। নিরাপত্তাবিষয়ক ক্যাবিনেট কমিটির ওই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং, অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি, প্রতিরক্ষামন্ত্রী নির্মলা সীতারামন, পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ, জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভালসহ ভারত সরকারের একাধিক শীর্ষ কর্মকর্তা।

অপরদিকে পাকিস্তানভিত্তিক সংবাদমাধ্যম দ্য ডন জানিয়েছে, পাক অধিকৃত কাশ্মীরে ভারতীয় হামলার পর ভারতের সব বিমানবন্দরে উচ্চ সতর্কতা জারি করা হয়েছে। ভারতীয় বিমান বাহিনীর আকস্মিক হামলার পর জরুরি বৈঠক তলব করেছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। মঙ্গলবার সকাল ১১টার দিকে কাশ্মীর পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনার জন্য দেশটির শীর্ষ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের নিয়ে বৈঠকে বসেছেন তিনি।

এর আগে সকালের দিকে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি পাক অধিকৃত কাশ্মীরে ভারতীয় বিমানবাহিনীর হামলার পর সেখানকার বর্তমান পরিস্থিতি পর্যালোচনার জন্য জরুরি বৈঠক ডাকেন। বৈঠকে পাকিস্তানের সাবেক সচিব ও রাষ্ট্রদূতরা অংশ নেন।

Share and Enjoy

  • Facebook
  • Twitter
  • Delicious
  • LinkedIn
  • StumbleUpon
  • Add to favorites
  • Email
  • RSS





Related News

  • সাংবাদিক খাশোগির লাশ পোড়ানো হয় বিশাল চুলায়
  • পাকিস্তানের পাল্টা হামলা
  • সব ঘটনার জন্য প্রস্তুত হন : জনগণের উদ্দেশে ইমরান
  • সমালোচনার তোড়ে ইহুদিবিরোধী বক্তব্যের জন্য ক্ষমা চাইলেন ইলহান
  • জাতিসংঘে ভাষণে প্রধানমন্ত্রী মিয়ানমার মুখে বলছে, বাস্তবে ভূমিকা নিচ্ছে না
  • ‘গুপ্তধন’ উদ্ধার, লকার গুলো ভেঙে পাওয়া গেছে ৫০০ কোটি রুপি
  • থাইল্যান্ডের গুহা থেকে ৮ কিশোরকে উদ্ধার করেছে ডুবুরিরা
  • কর দিতে হবে ফেসবুক, ইউটিউব, গুগলকে
  • Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
    Email
    Print